জোহরের নামাজের পর করনীয় আমল, দোয়া, ইবাদাত ও ফজিলত

শুরুতেই সবাইকে জানাই আমার সালাম। আসসালামু আলাইকুম। আশা করি, সবাই ভাল আছেন। আমিও আল্লাহ তা’লার অশেষ রহমতে অনেক ভাল আছি। আজকে নিবন্ধনে আমি সকলের জন্য নিয়ে এসেছি একটি গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট। আজকের এই পোস্টে থাকছে যে জোহরের নামাজের পর আমল, দোয়া, ইবাদাত এবং ফজিলত। প্রত্যেক মুসলমানদের নামাজ আদায় করার ফরজ বিধান রয়েছে। নামাজ শেষ হলে কিছু আমল, দোয়া, ইবাদাত এবং ফজিলতের মাধ্যমে আল্লাহ তা’আলা বান্দাদের মনে আশা করুক পূরণ করে থাকে।

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের শেষে বেশ কিছু আমল করে থাকেন। সে আমল গুলোর মাধ্যমে আল্লাহ তা’আলা নৈকত অর্জন করা যায়। তাই সেজন্য অনেকে জোহরের নামাজের পর করনীয় আমল গুলোর সম্পর্কে জানতে অনুসন্ধান করে থাকে তাদের জন্য আজকে আমাদের এই পোস্টে থাকবে জোহরের নামাজের পর করণীয় সকল আমল গুলো। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে নিচে বিস্তারিত ভাবে জোহরের নামাজের পর করনীয় না আমলগুলো তুলে ধরা হলো।

জোহরের নামাজের পর কি কি আমল করতে হবে?

`প্রত্যেক নামাজের শেষে কিছু দোয়া আছে যেগুলো পড়লে আল্লাহ তা’লা বান্দাদের নিক আশা গুলো পূরণ করে। এবং এই দোয়া গুলোর মাধ্যমে আল্লাহ তা’লার খুব নিকটে পৌঁছানো যায়। আল্লাহ তা’লা বান্দাদের সকল গুনাহ মাফ করে থাকে। তাই আমাদের এই সব দোয়া গুলোর সম্পর্কে জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

জোহরের নামাজ ১২ রাকাত। চার রাকাত সুন্নত, চার রাকাত ফরজ, দুই রাকাত সুন্নত এবং দুই রাকাত নফল। জোহরের নামাজ আদায়ের চার রাকাত নফল আদায়ের পর আল্লাহ তা’লার কাছে বেশ কিছু দুয়া করতে হয়। মনে রাখতে হবে মহান আল্লাহ তা’লা ফরজ নামাজের শেষে দোয়া কবুল করে থাকে। তাই আমাদের এ সময় সুরা ফাতেহা এবং সূরা বাকারার শেষ দুই আয়াত তেলাওয়াত করে আল্লাহ তা’লার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে এবং মনের আশা গুলো তুলে ধরতে হবে।

জোহরের নামাজের পর দোয়া

জোহরের নামাজ আদায়ের শেষে ৩৩ বার সুবহানাল্লাহ, ৩৩ বার আলহামদুলিল্লাহ ও ৩৩ বার আল্লাহু আকবার পাঠ করতে হয়। এছাড়াও অধিক সওয়াব অর্জনের জন্য সুরা ইয়াসিন, সূরা আর রহমান এবং সুরা দোহা পাঠ করলে অনেক সওয়াব অর্জন করা যায়। দরুদ শরীফের সাথে এই দোয়া গুলো পাঠ করে মনের সকালে আশা গুলো উল্লেখ করে আল্লাহ তা’লার কাছে প্রার্থনা করলে আল্লাহ তা’আলা বান্দাদের ক্ষমা করে দেন।

জোহরের নামাজের পর দোয়া গুলোর ফজিলত

ছোট ছোট দোয়া গুলোর মধ্য বেশ ফজিলত রয়েছে। এছাড়াও পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমেও শেষ সওয়াব অর্জন করা যায়। কুরআন ও হাদিসের আলোকে দোয়া গুলোর ফজিলত এবং তাৎপর্য আলোচনা করে শেষ করা যায়। নামাজের পর আমাদের ওপরে দেওয়া দোয়া গুলো পাঠ করে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে। উপরে দেওয়া দোয়াগুলো পাঠ করে অশেষ সওয়াব অর্জন করে নিতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *